ধরুন আপনি বন্ধুদের সাথে বাইক নিয়ে একটি ট্যুর দিবেন। সে ক্ষেত্রে অবশ্যই আপনাকে আপনার চলতি পথের সকল বাঁধা মোকাবিলা করার ব্যবস্থা রাখতে হবে। হঠাৎ টায়ার পাঞ্চার তেমনি একটি বাঁধা। আপনি যদি মোটর সাইকেলের টায়ার মেরামত এর টিপস গুলো সঠিক ভাবে জানতে পারেন এবং তা প্রয়োগ করতে পারেন তাহলে আপনার চলার পথ কিছুটা সহজ হয়ে যেতে পারে।

মোটর সাইকেলের টায়ার পঞ্চার হলে কী ভাবে সারাবেন ?

ভয় নেই ! এই কয়েকটি লাইনে আমরা আপনার মোটরবাইকটির অতিরিক্ত চাকা না থাকলেও , টায়ার পঞ্চার বা ক্ষতিগ্রস্থ হলে কীভাবে মেরামত করবেন তা ব্যাখ্যা করব ।
মোটরসাইকেলের চড়ার জন্য একটু অনুশীলন এবং অভিজ্ঞতা প্রয়োজন। বিশেষত যখন একটি টায়ার পাঞ্চার হয়ে যায় এবং এটি মেরামত করতে হয়।

রাস্তায় ক্ষতির কারণে মোটরসাইকেলের টায়ার পাঞ্চার হয়ে থাকে অনেক সময় রাইডারের অসতর্কতার কারণে ও হয়ে থাকে। তবে এর মেরামত করা খুব একটা কঠিন নয় ।

কেবল সহজ নির্দেশাবলী অনুসরণ করুন এবং আপনার মটরসাইকেলটির যে ধরণের টায়ার মাউন্ট করেছে তা টিউবলেস (অভ্যন্তরীণ টিউব ছাড়াই) নাকি অভ্যন্তরের টিউবযুক্ত তা বিবেচনা করুন।

টিউবলেস টায়ার মেরামত করার জন্য আপনার একটি মেরামত কিট থাকা প্রয়োজন, বাজারে পাওয়া খুব সহজ এবং খুব ব্যয়বহুল নয় । টিউবলেস ছাড়া যে টায়ার গুলি আছে সে টায়ার গুলোর ক্ষেত্রে, তথাকথিত “স্ফীত এবং মেরামত” ক্যান ব্যবহার করা প্রয়োজন, যা বাজারে কিনতে ও পাওয়া যায় ।

অবশ্যই, মোটরসাইকেলের টায়ারগুলি মেরামত করার কাজটি নিজেই করবেন। তবে তা অস্থায়ী ভাবে। যা অবশ্যই বিশেষায়িত টায়ার ডিলারের কাছে যাওয়ার জন্য অপেক্ষা না করে একটি অস্থায়ী সমাধান হিসাবে বিবেচনা করা উচিত।

অন্যদিকে, আপনি যদি টায়ারটি সম্পূর্ণ স্বায়ত্তশাসিত্বে মেরামতের জন্য চেষ্টা করতে চান তবে এখানে কিছু প্রযুক্তিগত টিপস জানা থাকা প্রয়োজন যা আপনাকে সহায়তা করতে পারে।

Motor Cycle tyer Puncher Kit

টিউবলেস মোটরসাইকেলের টায়ার কীভাবে মেরামত করবেন ?

প্রথম পদক্ষেপ: যেখানে লিক আছে তা খোঁচা অর্থাৎ সেই ছিদ্রটি সন্ধান করা । যদি এটি দৃশ্যমান না হয়, তবে সাবান এবং জল দিয়ে টায়ারটি ধুয়ে ফেলুন এবং একবার শুকিয়ে গেলে পুনরায় সাবান পানি লাগিয়ে নিন । যেখানে বুদবুদ দৃশ্যমান হবে, সেই মুহুর্তে আপনি টায়ারের গর্তটি দেখতে পাবেন, যা আমরা আপনাকে একটি সহজ চক দিয়ে চিহ্নিত করার জন্য সাজেশন করবো ।

একবার গর্তটি শনাক্ত হয়ে গেলে কিটে থাকা ম্যাস্টিকটি ব্যবহার করুন এবং এটি গর্তের ভিতরে ছড়িয়ে দিন। একটি বারান্দার সাহায্যে আপনি প্রথমে গর্তটি প্রসারিত এবং সংজ্ঞায়িত করতে পারেন।

বাইক নিয়ে আরো জানতে পারেন: বাসায় বসে বাইকের যত্ন নেয়ার উপায়

এখন প্রকৃত মেরামতের সময় হয়েছে হয়েছে, স্ব-ভলকানাইজিং রাবার ফালাটি প্রস্তুত করা দরকার যা টায়ার পুনরুদ্ধার করতে “প্যাচ” হিসাবে কাজ করবে এবং এটি আবার পরিবর্তন করতে সক্ষম হবে।

এই স্ট্রিপটি প্রথমে পুট্টি দিয়ে ছিটানো উচিত এবং একটি হুকের সাথে সংযুক্ত করা উচিত, যা গর্তের মধ্যে সন্নিবেশকে সহজতর করবে। এটি এমন একটি পদ্ধতি যার জন্য কিছুটা শক্তি এবং নির্ভুলতা প্রয়োজন, খেয়াল রাখতে হবে যাতে রাবারটি অবশ্যই গর্তের ভিতরে ফিট হয় এবং পুরোপুরি ভাবে ছিদ্রটি বন্ধ করে।

আপনি যখন গর্তের ভিতরে পুরোপুরি স্ট্রিপটি দেখবেন তখন আপনি লক্ষ্য করবেন যে একটি ন্যূনতম অংশ বাহিরের দিকে প্রসারিত হবে ; এই মুহূর্তে অতিরিক্ত রাবার অংশটি কেটে ফেলবেন।

এই অপারেশনের শেষ পর্যায়ে চাকায় হাওয়া ভরে নিবেন, তবে চিন্তার কিছু নেই, টুল কিটের ভিতরে সরবরাহ করা উপযুক্ত অংশের মাধ্যমে হাওয়া বের হয়ে আসবে না। এভাবে আপনার বাইকটি আবার যেতে প্রস্তুত হয়ে যাবে !!

টায়ার টিউবলেস না হলে কী হবে?

এই ধরণের টায়ার সারানোর জন্য আপনাকে বাইকের চাকা খুলে টিউব বের করতে হয়। তারপর টিউবের কোথায় লিক আছে তা বের করতে হয়। এ ক্ষেত্রে ও পূর্বে উল্লেখিত পদ্ধতিতে টিউবের লিক বের করবেন। তারপর লিকে পট্টি দিয়ে লিক সারাবেন। এবং পুনরায় চাকায় হাওয়া ভরে নিবেন। তারপর চাকাটি বাইকের সাথে ভালো ভাবে ফিক্স করে নিবেন। এইভাবে টিউব টায়ারের লিক সারাতে পারেন। তবে খেয়াল রাখবেন এইসব লিক সারানো ক্ষণস্থায়ী। সুতরাং অবশ্যই সাবধানতা অবলম্বন করবেন। এবং পরবর্তীতে সার্ভিসে সেন্টারে যেয়ে বাইক পুরোপুরি সারিয়ে নিবেন।

তবে মনে রাখবেন

একটি টিউবলেস টায়ার এবং একটি টিউব টায়ার দেখে দটির মধ্যে পার্থক্য কি ভাবে করবেন ভাবছেন ? টায়ারের পাশে এর জন্য ছোট সংকেত সরবরাহ করা থাকে। টিউবলেস জন্য সংক্ষিপ্তসার টিএল ( TL ) অভ্যন্তরীণ নল দিয়ে রাবারের জন্য টিটি ( TT ).

মেরামতের কিটের ভিতরে সরবরাহ করা ক্যানগুলি সঠিক মূল্যস্ফীতিটির গ্যারান্টি দেয় না, তাই চাপটি পরীক্ষা করার জন্য কোনও সার্ভিস স্টেশনে থামিয়ে পরীক্ষা করে নেয়া ভাল।

একটি টিউবলেস টায়ার সারাইয়ের পরে বাইক 70/80 কিমি /ঘন্টা চালানোই ভাল কেন না এই পঞ্চারের জন্য সমাধানটি সাময়িক। হাওয়া কম বেশি হওয়ার কারণে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে, তাই সাবধান থাকা ভালো।

পর্যায়ক্রমে কিটের বিষয়বস্তুগুলি পরীক্ষা করুন। পট্টির মতো উপাদানগুলি শুকিয়ে যেতে পারে এবং সঠিক সময়ে আর কার্যকর না ও হতে পারে।

বাইক বিষয়ে আরও জানতে: https://www.motorcyclevalley.com

সতরাং, আসা করি, আজকে আপনাদের কাছে মোটর সাইকেলের টায়ার মেরামত এর বিষয় গুলো খুব সহজ হয়ে গেলো। যদি এই তথ্য গুলো আপনার কাছে ভালো লেগে থাকে তাহলে বুঝে নিবেন আমাদের মতো আপনাদের কাছে ও মোটর সাইকেল একটি ইমোশনের জায়গা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.